সরগরম বলিউড: মাদক কেলেঙ্কারির অভিযোগে দীপিকারা

 

মাদক কেলেঙ্কারির অভিযোগ নিয়ে সরগরম বলিউড। অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর এই বিষয়টি নিয়ে চলছে তুমুল আলোচনা-সমালোচনা।

মাদক সেবনের অভিযোগ উঠেছে বলিউড সুপার স্টার দীপিকা পাডুকোন, সারা আলি খান, শ্রদ্ধা কাপুরের মতো তারকাদের বিরুদ্ধে।

২৭ সেপ্টেম্বর দীপিকাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে ভারতের মুম্বাইয়ের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) তদন্ত কমিটি।

সংবাদমাধ্যমে ফাঁস হওয়া মাদক নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটে দীপিকা তার ম্যানেজার কারিশমা প্রকাশের কাছে নিষিদ্ধ মাদক চেয়েছে বলে জানা যায়।

প্রায় সাড়ে পাঁচ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে দীপিকা ও তার ম্যানেজার কারিশমা প্রকাশকে মুখোমুখি বসিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে কারিশমা প্রকাশ জানিয়েছেন, মাদক বিষয়ক হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপের ‘ডি’মানে দীপিকা ও তিনি ওই গ্রুপের অ্যাডমিন ছিলেন।

একই দিন সারা আলি খান ও শ্রদ্ধা কাপুরকেও জিজ্ঞাসা করা হয়। মেয়ে সারাকে আইনি লড়াইয়ে সব ধরনের সাহায্য করছেন তার বাবা সাইফ আলি খান।

এদিকে, মাদক কেলেঙ্কারিতে ফেঁসে যাচ্ছেন বলিউডের প্রভাবশালী নির্মাতা করণ জোহরের সহযোগী ও ধর্মা প্রোডাকশনের নির্বাহী প্রযোজক ক্ষিতিজ রবি প্রসাদ। ১৮ সেপ্টেম্বর ক্ষিতিজের বাড়ি থেকে গাঁজা ও মারিজুয়ানা উদ্ধার করা হয়।

তবে ক্ষিতিজ নিজে মাদক গ্রহণ করতেন না করণ জোহরের জন্য সংগ্রহ করতেন তা জানার জন্য প্রায় চব্বিশ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে আটক রেখে জিজ্ঞাসাবাদের পর ক্ষিতিজকে গ্রেপ্তার করেছে এনসিবি।

এদিন রাতেই করণ জোহর এক বিবৃতিতে বলেন, ‘আমি নিষিদ্ধ মাদক সেবন নিজে করি না। মাদক সেবন করার বিষয়ে কাউকে সমর্থন বা প্রচারও করি না।’

এনসিবি’র তদন্তে ইতোমধ্যে মাদক কেলেঙ্কারিতে জড়িত থাকায় অভিযোগে বলিউড অভিনেত্রী ও সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সুশান্তের সঙ্গে বসেই সারা আলী খান ও রাকুল প্রীত মাদক সেবন করতেন বলে রিয়ার বক্তব্যে ওঠে এসেছে।

এনসিবি কর্মকর্তাদের নজরে রয়েছেন চলচ্চিত্র জগতের ৫০ জন অভিনেতা, প্রযোজক ও পরিচালক।

বলিউডের যে তারকারা মাদক সেবন পার্টির আয়োজন করেন তাদের সঙ্গে ক্রিকেট জগতের তারকাদেরও সংযোগ আছে বলে অভিযোগ পেয়েছে এনসিবি।

পূর্ববর্তী পড়ুন

মেজর সিনহাঃ আরও এক আসামি গ্রেফতার

পরবর্তী পড়ুন

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ ও অর্জন

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ten − 3 =

সর্বাধিক পঠিত