কখন পানি পান করলে বেশি উপকার পাবেন?

পানির অপর নাম যে জীবন, একথা তো আমরা সেই ছেলেবেলা থেকেই শুনে এসেছি। পানি ছাড়া জীবনের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখা মুশকিল। এই পানি আমাদের শরীর সুস্থ রাখতে সবচেয়ে বেশি দরকারি। পরিচ্ছন্নতার কাজে যেমন পানি প্রয়োজন, ভেতর থেকে নিজেকে সুস্থ রাখতেও তেমনই পানি প্রয়োজন।

আমাদের শরীরে ৬০ শতাংশই পানি। শরীরকে সুস্থ রাখতে সারাদিন কমপক্ষে ২ লিটার পানি পান করা উচিত। আমাদের মধ্যে বেশিরভাগ মানুষই যখন তৃষ্ণার্ত বোধ করে তখনই পানি পান করে নেয়, কিন্তু এটি করা ঠিক নয়। বোল্ডস্কাই জানাচ্ছে কখন পানি পান করা উচিত এবং কখন উচিত নয়-

 

সঠিক পরিমাণ পানি পানের ফলে শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রিত থাকে। সঠিক পরিমাণ পানি গ্রহণ শরীরের কোষগুলোকে শক্তিশালী করতেও কাজ করে। পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি না পান করার কারণে দুর্বলতা শুরু হয়। শরীরে পানির অভাবে বিভিন্ন ধরনের রোগ হওয়ার ঝুঁকিও থেকে যায়।

শোওয়ার ঠিক আগে পানি পান করলে তা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। আপনি যদি ঘুমানোর ঠিক আগে পানি পান করেন তবে রাতে আপনাকে বারবার টয়লেটে যেতে হতে পারে, যার কারণে আপনার ঘুমের সমস্যা হবে। আর, ঘুমের অভাবের কারণে নানান ধরনের রোগ হওয়ার ঝুঁকি থেকে যায়।

 

রাতে খাবার খাওয়ার আধা ঘণ্টা পরে পানি পান করা স্বাস্থ্যের পক্ষে অত্যন্ত উপকারী। এই সময় পানি পান করলে শরীরে উপস্থিত টক্সিন বাইরে বেরিয়ে আসে। এই সময়ে, হালকা গরম পান পান করলে পাচনতন্ত্র সঠিকভাবে কাজ করে। আপনার যদি ঘুমানোর আগে পানি পানের অভ্যাস থাকে, তবে ঘুমানোর আধা ঘণ্টা আগে পানি পান করে নিন।

পূর্ববর্তী পড়ুন

খুন করা হয়েছে সুশান্তকে,আত্মহত্যা নয়!

পরবর্তী পড়ুন

গ্যাস সংযোগের দুয়ার খুলছে আবাসিকে

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

6 + 2 =

সর্বাধিক পঠিত